ঠাকুরগাঁওয়ে হিন্দু ছাত্রী অপহরণ, জোরপূর্বক ধর্মান্তরিত করার হুমকি

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁও জেলার হরিপুরে কলেজ পড়ুয়া এক হিন্দু ছাত্রীকে জোরপূর্বক অপহরণ করে ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হওয়ার হুমকি প্রদানের অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার (১৮ ফেব্রুয়ারী) রাতে ওই ছাত্রীর ভাই এ ঘটনায় হরিপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপার মোহা. মনিরুজ্জামান (পিপিএম-সেবা) বলেন, এ ঘটনায় ৫ জনকে আসামী করে হরিপুর থানায় একটি নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের হয়েছে।

এখনো আসামী ধরা না পড়লেও খুব দ্রুত তাদের গ্রেফতার করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার বরমপুর গ্রামের সোনাই চন্দ্র সিংহের এইচএসসি পড়ুয়া মেয়ে অনিতা রাণী (১৭) একই উপজেলার যুবক খামার (স্কুলপাড়া) গ্রামের মৃত বেলাল হোসেনের ছেলে জিয়াউর রহমান (২৩) এর কাছে প্রাইভেট পড়তো। এ সুবাদে ১৭ ফেব্রুয়ারী সকালে অনিতা রাণী কলেজ যাওয়ার পথে পূর্ব পরিচিত হওয়ায় জিয়াউর রহমান তার পথরোধ করে ফুসলিয়ে অজ্ঞাতনামা ৪/৫জনকে সাথে নিয়ে তাকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়।

পরে বিকেল চারটা পেরিয়ে গেলেও অনিতা রাণী বাড়িতে না ফিরে আসায় পরিবারের লোকজন তাকে বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি শুরু করে।

পরে মামলার সাক্ষী ও স্থানীয় লাল বিহারী, বিমল, দিলিপ এদের মাধ্যমে অপহরণের বিষয়টি নিশ্চিত হয় অনিতার পরিবার।

পরবর্তীতে অপহরণকারি জিয়াউর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে মেয়েকে ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত করার হুমকিসহ মামলা-মোকদ্দমা করলে অনিতাকে মেরে তার লাশ গুম করার হুমকি দেয় সে।

মামলার বাদী সত্যেন্দ্র নাথ রায় বলেন, “আমরা খুবই গরীব মানুষ। কৃষিকাজ করে কোন রকম সংসার চালাই। জিয়াউর আমার সহজ-সরল বোনটির এতোবড় ক্ষতি করবে তা কখনো কল্পনাও করিনি। আমি আমার বোনকে ফিরে পেতে সকলের সহযোগিতা চাই এবং এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই।

Leave a Reply