ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার টি হিন্দু পরিবারকে তাদের বাড়ী থেকে উচ্ছেদের অভিযোগ

এবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার কুন্ডা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এবং আওয়ামী লীগ নেতা হাজী মোঃ ওয়াছ আলী মিয়ার বিরুদ্ধে ৫টি হিন্দু পরিবারকে তাদের বাড়ী থেকে উচ্ছেদের অভিযোগ পাওয়া গেলো। বাড়ীটির অবস্থান হলো একই ইউনিয়নের কুন্ডা মৌজার মধ্যে (সাবেক দাগ–২৮৭৩,২৯৭৪-বর্তমান দাগ-৬১৭৩ নং চুড়ান্ত বিএস দাগে মোট-২২ শতক), যার বর্তমান বাজার মূল্য প্রায়-প্রতি শতক পাঁচ লক্ষ টাকা হলে বাইশ শতক বাড়ী=-১,১০,০০,০০০/- এক কোটি দশ লক্ষ টাকা, দলিল অনুযায়ী জমির প্রকৃত মালিক অমূল্য কুমার দত্ত ওরুফে নিশু দত্ত, অজয় কুমার দত্ত ওরুফে অন্তু স্যার, অমূল্য কুমার দত্ত, অজয় কুমার দত্ত কারো কাছে এই জমি বিক্রি করে নাই, উল্লেখ্য এখানে হরিদাস সরকারের পরিবার দত্ত বাবুদের বাড়ীতে আশ্রিত হিসাবে ৫০ বছর ধরে বসবাস করছে । (সাবেক দাগ–২৮৭১ বর্তমান দাগ–৬১৭৫ দাগে (মন্দিরের নামে)-০৯ শতক (নয় শতক) বাড়ী ভুমি), যার বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় প্রতি শতক বিশ লক্ষ টাকা হলে নয় শতক এর মূল্য–১,৮০,০০,০০০/-এক কোটি আশি লাখ টাকা।

(সাবেক দাগ–২৮৭৫ বর্তমান দাগ-৬১৭৪ দাগে আনুমানিক-১২ শতক পুকুর মন্দিরের নামে) যার বর্তমান বাজার মুল্য–প্রতি শতক এক লক্ষ টাকা হলে বার শতক এর মূল্য প্রায়–১২,০০,০০০/-বার লক্ষ টাকা। (সাবেক দাগ–২৮৭২ বর্তমান দাগ–৬১৭১ দাগে–১১ শতক(এগার শতক)–কুন্ডা হাই স্কুলের, যার বর্তমান বাজার মুল্য-প্রায় প্রতি শতক বিশ লক্ষ টাকা দরে এগার শতক), যার বর্তমান মূল্য–২,২০,০০,০০০/-দুই কোটি বিশ লক্ষ টাকা। যথাযথ তদন্ত সাপেক্ষে এই ৫ টি পরিবারের ভিটেমাটি পুনরায় ফিরিয়ে দেওয়া হোক, সেই সাথে হাজী মোঃ ওয়াছ আলী মিয়াকে আওয়ামিলীগ থেকে বহিষ্কার করে, দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।।

C/ নিলয় চক্রবর্তী

Leave a Reply